জেনে নিন কিভাবে ডাটা লস হওয়া ছাড়া শাওমী মোবাইলের Pattern/PIN Lock রিমুভ করবেন

আসসালামু আলাইকুম,

এই টিউটোরিয়ালে আমি আপনাদের কিভাবে শাওমী মোবাইলের প্যাটার্ন লক ভুলে গিলে রিমুভ করবেন তা দেখাব। আপনারা যারা শাওমী মোবাইল ব্যবহার করেন কম বেশী অনেকেই ভুল প্যাটার্ন লক (ভুলে/ইচ্ছাকৃত) দেওয়ার কারণে শাওমী কর্তৃক দেওয়া প্যারা অর্থাৎ ধারাবাহিকভাবে ১ মিনিটি, ৪ মিনিট, ৬০ মিনিট, ১২০ মিনিট এভাবে প্যাটার্ন লক আনলক করার জন্যে বেঁধে দেওয়া টাইমিং এর সম্মুখীন হয়েছেন। এই সময় পর আপনি সঠিক প্যাটার্ন দিতে পারলে তো বাঁচলেন নতুবা দেখা যাচ্ছে সময় আরো বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে 😀

এখন প্রশ্ন হচ্ছে আপনার যদি কোন প্যাটার্ন দিয়েছেন তা মনেই না থাকে বা প্যাটার্ন যদি কোনভাবে সঠিক প্যাটার্ন দেওয়ার পরেও না নেই সেক্ষেত্রে কি করবেন?

মূলত এই সমস্যা থেকে উদ্ধার প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করার জন্যেই এই টিউটোরিয়ালটি করা।

চলুন তাহলে প্রসেসটি জেনে নি।

সাধারণত দুভাবে প্যাটার্ন লক বাই পাস করা যায়।

১) মোবাইল অফ করে ডাটা Wipe করে দেওয়ার মাধ্ইয়ে।

২) কাস্টম রিকোভারী দিয়ে

১ নং প্রক্রিয়ার জন্যে আপনার মোবাইল এ কাস্টম রিকোভারী বা রুট বা বুটলোডার আনলক ইত্যাদি থাকার প্রয়োজন নেই। কিন্তু মূল সমস্যা হল এই প্রসেসে আপনার মোবাইলের সব ডাটা ডিলিট হয়ে যাবে। যাহ আপনি হয়তো কখনই চান নাহ।

আমি মূলত ২নং প্রক্রিয়া নিয়েই আলোচনা করব। তো কাস্টম রিকোভারী দিয়ে প্যাটার্ন লক বাই পাস করতে হলে আপনার মোবাইলে অবশ্যই নিম্নোক্ত কাজগুলা করা থাকা লাগবে —

> বুটলোডার আনলক করা থাকা লাগবে

> কাস্টোম রিকোভারী ইন্সটল থাকা লাগবে

> রুট করা থাকলে ভাল

এই কাজ গুলো কিভাবে করবেন? তা নিয়ে ভাবছেন তো?

165175281.jpg

চিন্তার কিছু নেই। নীচে কিভাবে শাওমী মোবাইলে কাস্টম রিকোভারী ইন্সটল ও রুট করা লাগে তার লিংক দেওয়া হলে। একবার গিয়ে দেখে নিন। আশা করি এই চিন্তার অবসান ঘটবে 🙂

“জেনে নিন কিভাবে শাওমী মোবাইলে কাস্টম রিকোভারী ইন্সটল ও রুট করে “

রিকোভারী ইন্সটল ও রুট এর সমাধান তো পেলেন। এবার মূল কাজে ফিরে আসেন 😀

প্রথমে প্যাটার্ন রিসেট ফাইলটি ডাউনলোড করুন। ডাটা ক্যাবল এর সাহায্যে ফাইলটি আপনার লক হয়ে যাওয়া মোবাইলের ইন্টার্নাল মেমরীর যেকোন একটি ফোল্ডারে রাখুন অথবা মেমরী কার্ডে ফাইলটী নিয়ে মেমরী কার্ড মোবাইলে লাগান অথবা OTG পেন্ড্রাইভে ফাইলটি রাখুন।

 Download: Pattern Rest.zip File

এবার সুন্দরমত ফোনটি  পাওয়ার অফ করে দিয়ে  TWRP রিকোভারী মুড এ চলে আসুন। মডেল অনুসারে এক এক ফোনের TWRP/Recovery তে যাওয়ার নিয়ম এক এক রকম। আপনার মডেলের প্রসেস জেনে নিন। সাধারণত Power Key + Volume Up Key একসাথে চেপে Recovery Mood  এ যাওয়া হয়। আবার কিছু কিছু মডেলে যেমন রেডমি ৪ প্রাইমে Power Key + Volume Up Key দেওয়ার পরে নীচের ছবির মত আসে

img_20160912_211841

Xiaomi_Redmi_4_Prime_Pro_flash_TWRP_recovery_riavvio_tasto_volume_piu_tasto_power.jpg

এখান থেকে recovery তে ক্লিক করলে নীচের ছবির মত Team Win Recovery Project (TWRP) আসবে

Twrp-3.0-Recovery-Redmi-Note-4

এবার Install এ ক্লিক করে একটু আগে ডাউনলোড করা Pattern Reset.zip ফাইলটি তার নির্দিষ্ট লোকেশন থেকে সিলেক্ট করে Swipe to confirm Flash করে দেয়

TWRP-Recovery-Confirm-Flash

Pattern Rest.zip ফাইল ইন্সটল হওয়ার পরে মোবাইল রিবুট দিন। এখন দেখবেন আপনার মোবাইলে আগে যে পাসওয়ার্ড বা প্যাটার্ন লক ছিল তা আর নেই। এখন আপনি চাইলে পুনঃরায় প্যাটার্ন লক সেট করে দিতে পারবেন।

আশা করি আপনারা কাজটি সফল ভাবে করতে সক্ষম হবেন।

 

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s